বনানীর এফআর টাওয়ারে আগুন বিস্তারিত জেনে নিন

আজকে বনানীর এফআর টাওয়ারে অগ্নিকাণ্ডের ঘটনা ঘটেছে।।  বনানীর অগ্নিকাণ্ডের ঘটনায়  মৃতের সংখ্যা ১৯ জন ও আহত ৭০ জন।
বনানীর অগ্নিকাণ্ডের ঘটনায়  মৃতের সংখ্যা ১৯ জন ও আহত ৭০ জন
 রাজধানীর বনানীর কামাল আতার্তুক আ্যভিনিউয়ের বহুতল ভবনে আগুন লেগেছে।।  আজ দুপুর ১২ টা ৫০ মিনিটে আগুন লেগেছিলো এবং ফায়ার সার্ভিসের ২২ টি ইউনিট দীর্ঘক্ষন কাজ করার পর বিকেল ৫ টা ৪৫ মিনিটে আগুন নিয়ন্ত্রণে আসে।  এই ভবনটিতে   অর্ধশতাধিক অফিস রয়েছে। এগুলোর মধ্যে ""ওয়েব গ্রুপ, আমরা টেকনোলজিস লিমিটেড, হেরিটেজ এয়ার এক্সপ্রেস ছাড়াও আরো অনেক অফিস রয়েছে।

"""এই অগ্নিকাণ্ডের ঘটনায়এখন  পর্যন্ত  ১৯ জনের মৃত্যু হয়েছে।  ঘটনাস্থলে ১১ জন,  কুর্মিটোলা জেনারেল হাসপাতালে ১ জন, ঢাকা মেডিকেল কলেজ (ঢামেক হাসপাতালে)  ২ জন, ইউনাইটেড হসপিটালে ৩ জন মারা গেছে।
এবং আহত হয়েছে ৭০ জন।  """"উদ্ধারকর্মীরা জানিয়েছেন উদ্ধার হওয়া সকলেই কমবেশী আহত হয়েছে।।


আগুন ভয়াবহ রুপ নেওয়ার কারণ; 

বনানীর এফআর টাওয়ারের অষ্টম,  নবম,  দশম তলার বিভিন্ন প্লাষ্টিক,  ইলেল্ট্রনিক যন্ত্রপাতি বিশেষ করে কম্পিউটার থাকায়,  ভিনাইল বোর্ড এর কারনে আগুন ভয়াবহ আকার ধারণ করেছে। ভবনের ৮ম, ৯ম, ১০ম তলা বেশী ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে। তবে এখনো জানা যায় নি, আগুন কোন তলা থেকে লেগেছিল।  এছাড়া ৮ম, ৯ম, ১০ম তলাতে ৯ জনের পোড়া মরাদেহ পাওয়া গেছে। 


দীর্ঘ প্রচেষ্টার পর আগুন নিয়ন্ত্রণে এসেছে।  কিন্তু এখনো  নির্বাপন শতভাগ হয়নি। ধোঁয়া আসছেই,  পুরোপুরি নিয়ন্ত্রণে আসতে সময় লাগবে। 


বনানীর আগুন সার্বক্ষনিক মনিটরিং করছেন প্রধানমন্ত্রী ;

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বনানীতে আগুন লাগার ঘটনা মনিটরিং করছেন।  তিনি প্রয়োজনীয় দিক নির্দেশনা দিচ্ছেন। আগুনে ক্ষতিগ্রস্তদের সব ধরনের সহযোগিতা করা হবে বলে জানিয়েছেন তিনি। 

ফায়ার সার্ভিসের বক্তব্য ;


রাজধানীর বনানীর ১৭ নম্বর রোডের এফআর টাওয়ারের পর্যাপ্ত অগ্নিনির্বাপণ ব্যবস্থা ছিল না। 
একটি বানিজ্যিক বহুতল ভবনে যে পরিমাণ অগ্নিনির্বাপণের জন্য যে পরিমাণ অগ্নিনির্বাপণ ব্যবস্থা প্রয়োজন তা সেখানে ছিল না। তবে ২/১ টা ফ্লোরে অগ্নিনির্বাপক ব্যবস্থা ছিল।  আধুনিক যন্ত্রপাতি ব্যবহারের কারণে ৪ টা ফ্লোরের বাইরে আগুন ছড়াতে পারেনি। তবে আগুনের ধোঁয়া ওই ভবনের বাইরে আশেপাশে ছড়িয়ে পড়ার জন্য আতন্কের সৃষ্টি হয়। 

এখানে বনানীর আগুন লাগার কয়েকটি ইমেজ দেখে নিন ;





7 comments:

  1. ki bolbo vai Bangladesh a j ki holo kichu din dore khali manus mara jacche aj bonani sarao koyla gateo agun lagchilo r aj sara bangladesh 100 tir beshi pran gece amar jana mote kintu kom hobe na
    allah amader k khoma koruk

    ReplyDelete
  2. আল্লাহ আমাদেরকে এসব ভয়াবহ পরিস্থিতি থেকে বাঁচার তৌফিক দান করুক । আমিন

    ReplyDelete

Featured post

বিশ্বকাপে ফিক্সিং রোধকল্পে নতুন ব্যবস্থা আইসিসির

ক্রিকেট বিশ্বকাপ ২০১৯ কিছুদিনের মধ্যেই শুরু হতে যাচ্ছে৷   ফিক্সিং নামক ভয়ানক পরিস্থিতি মোকাবিলা করতে আইসিসি একটি নতুন পদক্ষেপ নিয়েছে।। প...

Powered by Blogger.