বাটন মোবাইলেরও দরকার আছে......

বাটন মোবাইলেরও দরকার আছে,,,,

বাটন মোবাইলেরও দরকার আছে 

বর্তমানে আইসিটির ব্যাপক উন্নয়ন সাধিত হয়েছে।  তাই যুগের সাথে তাল মিলিয়ে প্রায় সবার হাতে হাতে এনড্রয়েড বা স্মার্টফোন।  ফলে বাটন মোবাইলের ব্যবহার অনেক কমে যাচ্ছে।।  তবে কি বাটন মোবাইলের দরকার নেই?? হ্যাঁ,  অবশ্যই বাটন মোবাইলের দরকার আছে। বিশেষ করে আমরা যারা গ্রামে থাকি তাদের তো সবচেয়ে বেশি প্রয়োজন। 


আমাদের মতো যারা গ্রামে থাকেন, তাদের তো বাটন মোবাইল ছাড়া চলেই না।  বিশেষ করে ঝড়, বৃষ্টি  হলে তো বাটন মোবাইল সবাই খুজতে থাকে।  কেন জানেন? আমিই বলছি উত্তরটি ;  গ্রামে যারা থাকি তারা তো জানিই গ্রামের কারেন্ট এর অবস্থা!!!  মুলত ঝড়, বৃষ্টি হলে কারেন্ট যে কয়েকদিন আসবে না, সেটি সবার অজানা নয়।  সবাই তখন কারেন্ট এর জন্য চাতক পাখির মতো চেয়ে থাকে। কেউবা কারেন্ট এর জন্য  বাতি জ্বালিয়ে রাখে এবং ভাবে কখন যে কারেন্ট আসে।  আবার কেউ ফ্যানের সুইচ দিয়ে রাখে এবং ভাবে কখন যে কারেন্ট আসে। আবার সেই সময় (ফ্যানের সুইচ) রাত্রে যখন বাতাস প্রবাহিত হয়, তখন ঘুম থেকে উঠে ভাবে এই বুঝি কারেন্ট চলে এসেছে। কিন্তু! ঘুম থেকে উঠে দেখে কারেন্ট  নাই!!!! তখন বুঝতে পারে যে সেটি রাত্রের চারিপাশে নিস্তব্ধতা এবং শান্ত পরিবেশ। আবার অনেকেই কারেন্ট এর জন্য বিদ্যুৎ অফিসে ফোন দিতেই থাকে।।  আর এই সময়ে আমাদের সকলের বাটন মোবাইলেরও দরকার আছে। এন্ড্রয়েড তখন কারেন্ট ব্যতীত চালানোই মুশকিল হয়ে পড়ে।। কেননা  এন্ড্রয়েডের ফোনের চার্জ  ধরে রাখাই কঠিন। বিশেষ করে আমার মতো যেসব ইউজার আছে তাদের তো কথাই নেই!!  পক্ষান্তরে,,  বাটন মোবাইলের  চার্জ  ৩/৪ দিন পর্যন্ত টিকে যায়। বিশেষ করে আমার মতো যারা Itel বা Symphony  বাটন মোবাইল ইউজ করেন তাদের ক্ষেত্রে এটি আরো প্রযোজ্য।  এজন্য সবাই এন্ড্রয়েড ফোন রেখে বাটন মোবাইল নিয়েই আনন্দে থাকে। তখন সবাই বাটন মোবাইল খুজতে শুরু করে।।

এছাড়া যারা বৃদ্ধ  বা প্রবীণ এবং মূর্খ্য লোক তাদের তো বাটন মোবাইল সবচেয়ে বেশি পছন্দনীয়। তারা তো শিক্ষিত না,  তাই পড়ালেখাও জানে না; সেজন্য এন্ড্রয়েড এর ফানকশন বুঝে না,  তাই তাদের কাছে বাটন মোবাইলই দরকার। বিশেষ করে আমার আব্বার মতো যারা তারা তো  সেই আদিযুগের বাটন মোবাইল  Nokia1200/Nokia1100 model এর বাটন মোবাইল খুজে।  কেননা সেটিতে মোবাইল নাম্বার সেভ করে রাখার সময় বিভিন্ন ধরনের চিহ্ন বা  আকৃতি ( ফুল, লতা,,  পাতা, ফুটবল,  ক্রিকেট,  কাল্লা)  প্রভৃতি ব্যবহার করা যায়। এখানে অনেকের মনেই প্রশ্ন জাগছে,  এখন তো এন্ড্রয়েড এর মধ্যে নিজের ফটো বা যার নাম্বার সেভ করে রাখবেন সরাসরি তার ফটোও ইউজ করা যায়।  তাই বাটন ইউজ করার প্রয়োজন কি?? উত্তরটি শুনুন ; যারা বয়স্ক লোক বা অশিক্ষিত,  পড়ালেখা জানা নাই বললেই চলে, তারা তো এসব ফানকশন বুঝেই না,,  সেজন্য তারা বাটনকেই মুল্যবান ভাবে।  তাছাড়া তারা সরলসোজা মানুষ, তাই  এন্ড্রয়েডকে তারা একটা ঝামেলা মনে করে। 

এছাড়া যারা অনক ছোট বা দরিদ্র তারাতো  বাটন মোবাইল ছাড়া অন্য কিছু (স্মার্টফোন ,  ল্যাপটপ)  চালানোর সুযোগ পায় না। 

আমার মতো যারা গ্রামে থাকেন তারা এসব বিষয় সম্পর্কে জানেন।  এই কয়েকদিন আমি আপনাদের জন্য কোনো পোস্ট করতে পারি নি শুধুমাত্র কারেন্ট না থাকার কারণে।  তাই অনেক কিছু ভাবার পরে আজকে কারেন্ট পাওয়ার সাথে সাথেই এই পোষ্টটি করলাম। 

4 comments:

Featured post

বিশ্বকাপে ফিক্সিং রোধকল্পে নতুন ব্যবস্থা আইসিসির

ক্রিকেট বিশ্বকাপ ২০১৯ কিছুদিনের মধ্যেই শুরু হতে যাচ্ছে৷   ফিক্সিং নামক ভয়ানক পরিস্থিতি মোকাবিলা করতে আইসিসি একটি নতুন পদক্ষেপ নিয়েছে।। প...

Powered by Blogger.